Assignment

হিসাববিজ্ঞানের উদ্দেশ্য ও প্রয়োজনীয়তা লিখো

হিসাব বিজ্ঞানের প্রধান উদ্দেশ্য সিদ্ধান্ত গ্রহণে উপযোগী তথ্য ব্যবহারকারীর নিকট উপস্থাপন করা। এই তথ্য কখন কিভাবে এবং কার নিকট উপস্থাপনকরা হবে, এবং উপস্থাপিত তথ্যেরকি কি গুণাগুণ থাকতে হবে,তা নিয়ে হিসাববিজ্ঞানের ধারণা সংক্রান্ত কাঠামো আলোচনা করে। Financial Accounting Standard Board (FASB) এই ধারণা, নীতি ওসীমাবদ্ধতাগুলো প্রণয়ন করে।

হিসাববিজ্ঞানতথ্যের ব্যবহারকারী:—

১.পরিচালনা পর্ষদ
২.ব্যবস্থাপকগণ
৩.উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাবৃন্দ।

হিসাববিজ্ঞান তথ্যের গুণাবলী প্রাথমিক গুণাবলী প্রাসঙ্গিকতা:-

একটি তথ্য প্রাসঙ্গিক হবে, যদি সে তথ্য আমাদের ভবিষ্যতে কোন বিষয় অনুমান করতে সাহায্য করে। একই সাথে তা যদি সময়মতো ব্যবহারকারীর নিকট উপস্থাপিত হয়। যেমন- এ বছরের সমাপনী মজুদ পণ্যের জের কতো রয়েছে তা আমাদের আগামী বছরের ক্রয়ের পরিমাণ নির্ধারণে সহায়তা করবে এবং এই জের এই বছরের শেষেই নির্ধারণকরতে হবে। সহায়ক গুণাবলী

বিশ্বাসযোগ্যতা : হিসাববিজ্ঞান পরিবেশিত তথ্য সংশ্লিষ্টপ্রমাণাদি দ্বারা প্রমাণিত হতে হবে।যেমন, ভাউচার, ক্যাশ মেমো, ইত্যাদি এবং একই সাথে তা পক্ষপাতমুক্ত হতে হবে।

তুলনাযোগ্যতা : হিসাববিজ্ঞান তথ্য প্রতিষ্ঠানের বিগত হিসাবকালের তথ্যের সাথে এব্ং একইসাথে সমজাতীয় প্রতিষ্ঠানের হিসাবতথ্যের সাথে তুলনাযোগ্য হতে হবে।

সামঞ্জস্যতা : কোন প্রতিষ্ঠানের হিসাবতথ্য প্রতি হিসাবকালে একই নিয়মমেনে সংরক্ষণ করতে হবে। যেমন- একটি সম্পত্তির অবচয় নির্ধারণের জন্য যদি সরলরৈখিক পদ্ধতি অবলম্বন করা হয় তাহলে প্রত্যেকটি হিসাবকালে সরলরৈখিক পদ্ধতি ব্যবহার করতে হবে।

হিসাববিজ্ঞানের উদ্দেশ্য ও প্রয়োজনীয়তা

০১। হিসাববিজ্ঞানের উদ্দেশ্য ও প্রয়োজনীয়তা ০৯ টি ।
০২। হিসাবরক্ষণের মাধ্যমে প্রতারণা ও জালিয়াতি নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব ।
০৩। হিসাববিজ্ঞানের সর্বপ্রথম উদ্দেশ্য হল লেনদেনসমূহ লিপিবদ্ধকরন ।
০৪। হিসাববিজ্ঞানের অন্যতম উদ্দেশ্য হল আর্থিক ফলাফল ও অবস্থা নিরূপণ ।
০৫। ব্যয় নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের কাঙ্ক্ষিত ফলাফল অর্জন সম্ভব ।
০৬। ব্যবসায়ের বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহনে আর্থিক তথ্যাবলি ব্যবহার হয়ে থাকে ।
০৭। স্কুল , কলেজ , হাসপাতাল ইত্যাদি সেবামূলক অমুনাফাভোগী প্রতিষ্ঠান ।
০৮। সুন্দর , মনোরম ও মিতব্যয়ী জীবনের জন্য প্রয়োজন হিসাবরক্ষণ ।
০৯। কর , শুল্ক , ভ্যাট , কাস্টমস ডিউটি ইত্যাদি সরকারের আয়ের উৎস ।
১০। হিসাবরক্ষণের মাধ্যমে আর্থিক সচ্ছলতা অর্জন সম্ভব ।

হিসাববিজ্ঞানের উদ্দেশ্য

হিসাববিজ্ঞানের মূল কাজ হল ব্যয়-উপযোগিতা বিশ্লেষণ, নিরীক্ষণ এবং আর্থিক বিবরণী প্রকাশ। নিচে হিসাববিজ্ঞানের দুইটি উদ্দেশ্য তুলে ধরা হলঃ

১। হিসাববিজ্ঞানের মূল উদ্দেশ্য হল আর্থিক লেনদেনগুলো হিসাবের বইতে সিঠিকভাবে লিপিবদ্ধকরণ এবং তা হতে হবে হিসাববিজ্ঞানের নীতি অনুসারে। যদি লিপিবদ্ধকরণ সঠিক না হয় তাহলে হিসাবের আর্থিক বিবরণী তার সঠিকতা হারাবে।
২। প্রতিষ্ঠানের আর্থিক ফলাফল ও অবস্থা নিরুপন করা হিসাববিজ্ঞানের আরো একটি উদ্দেশ্য। কারণ হিসাববিজ্ঞানের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যায়, লাভ-ক্ষতি, দেন-পাওনা ইত্যাদির হিসাব ছাড়াও প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় লেনদেনের হিসাব পাওয়া যায়।

সকল বিষয়ের আপডেট তথ্য পেতে আমাদের Facebook page ও Facebook group এ যোগ দিন।

আরও দেখুনঃ

১) হিসাববিজ্ঞান কী?
২) হিসাববিজ্ঞানের ২টি উদ্দেশ্য লিখ।
৩) ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে হিসাববিজ্ঞানের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কর।
৪) হিসাব তথ্যের অভ্যন্তরীণ ও বাহ্যিক ব্যবহারকারীদের ১টি তালিকা প্রস্তুত কর।
৫) মূল্যবােধ সৃষ্টিতে হিসাববিজ্ঞানের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর।

Tags

Life

Life is one of the most active members of our writing team. She puts his best foot forward to bring the trending news and Education topic. Life is a great writer too. Her pieces are always objective, informative and educative.
Back to top button
Close